A Reliable Media

ঠাকুরগাঁওয়ে অস্ত্রের মুখে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

ঠাকুরগাঁওয়ে অস্ত্রের মুখে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁওয়ে অস্ত্রের মুখে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার (৩ মার্চ) দুপুরে সদর উপজেলার ৫ নং বালিয়া ইউনিয়নের কিসমত শুখানপুকুরী মাঝপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, একই গ্রামের বাসিন্দা ইসারুল ইসলামের একমাত্র ছেলে রায়হান (১৮) তাদের বাড়িতে তার মা ডেকেছে বলে মেয়েটিকে নিয়ে যায়। এরপর বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে অস্ত্রের মুখে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে।

মেয়েটি ধর্ষকের হাত থেকে বাঁচার জন্য চেষ্টা করলে তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হত্যার ভয় দেখায়। এরপর স্থানীয় এক বাসিন্দা বিষয়টি দেখে ফেললে মেয়েটির বাবাকে খবর দেয়। পরে তার বাবা ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

মেয়েটির বাবা জানান, বুধবার দুপুরে আমরা সবাই মাঠে কাজ করতে যাই। এই সুযোগে আমার মেয়েকে কৌশল করে রায়হান তার বাসাতে নিয়ে যায়। এ সময় তার বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে। আমাকে স্থানীয় এক ব্যক্তি খবর দিয়ে বলে রায়হানের বাসায় যাও। আমি তাড়াতাড়ি তার বাসায় গিয়ে দেখি আমার মেয়ে রায়হানের ঘরে উলঙ্গ অবস্থায় আছে। পরে ঘরের দরজা ভেঙ্গে আমার মেয়েকে উদ্ধার করি। আমি প্রশাসনের কাছে বিচার চাই এবং ধর্ষকের সর্ব্বোচ্চ শাস্তি চাই।

অভিযোগের বিষয়ে অভিযুক্ত রায়হানের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হলে কাউকে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তানভীরুল ইসলাম জানান, এ ব্যাপারে একটি মামলা হয়েছে এবং আসামিকে ধরতে আমাদের অভিযান চলছে।

editor

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *