A Reliable Media

বয়স্কদের দেহে ‘আশাব্যঞ্জক’ ফলাফল দেখিয়েছে অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন

বয়স্কদের দেহে ‘আশাব্যঞ্জক’ ফলাফল দেখিয়েছে অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন

অনলাইন ডেস্ক: বয়স্কদের দেহে ‘আশাব্যঞ্জক’ ফলাফল দেখিয়েছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনাভাইরাস প্রতিরোধক ভ্যাকসিন। এই ফলাফল কোভিড-১৯ আক্রান্ত ৬০ থেকে ৭০ বছর বয়সী ব্যক্তিদের জীবন রক্ষার ক্ষেত্রে আশার আলো দেখাচ্ছে। বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রাজেনেকার নামে অক্সফোর্ডের তৈরি ভ্যাকসিনটির লাইসেন্স।

বিবিসি জানিয়েছে, বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী ‘দ্য ল্যানসেট’–এ বৃহস্পতিবার অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে দেখা গেছে, ৬০ থেকে ৭০ বছর বয়সীদেরও দেহে এই ভ্যাকসিনটি ভালো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করেছে। দ্বিতীয় ধাপের এই পরীক্ষায় ৫৬০ জন প্রাপ্তবয়স্ক স্বেচ্ছাসেবী অংশ নিয়েছিলেন। তৃতীয় ধাপে আরও বড় পরিসরে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ২৫ ডিসেম্বরের মধ্যেই জানা যাবে এই টিকা রোগে বেড়ে যাওয়া কতটা থামাতে পারবে।

অক্সফোর্ড ভ্যাকসিন গ্রুপের পরিচালক অ্যান্ড্রু পোলার্ড জানিয়েছেন, এখনও চূড়ান্ত তথ্য দেয়ার মতো অবস্থা আসেনি। তবে আমরা বেশ কাছাকাছি চলে গেছি। বড়দিনের আগেই এ বিষয়ে পরিষ্কার হওয়া যাবে।

সম্প্রতি তিনটি ভ্যাকসিন বড় ধরনের অগ্রগতির খবর দিয়েছে। এদের মধ্যে আছে- ফাইজার-বায়োএনটেক, স্পুতনিক ও মডার্না। ফাইজারের তৈরি করোনাভাইরাসের (কোভিড–১৯) ভ্যাকসিন ৯৫ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর বলে দাবি করা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের আরেক বহুজাতিক ওষুধ কোম্পানি মডার্না ইনকরপোরেশন জানিয়েছে, তাদের তৈরি ভ্যাকসিন করোনা ঠেকাতে ৯৪ দশমিক ৫ শতাংশ কার্যকর। অন্যদিকে, রাশিয়ার দাবি, তাদের তৈরি স্পুতনিক টিকার কার্যকারিতা ৯০ শতাংশের বেশি।

তবে ফাইজার ও মডার্নার ভ্যাকসিন সংরক্ষণের ক্ষেত্রে তাপমাত্রার বাধ্যবাধকতা আছে। অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনটির ক্ষেত্রে এ ধরনের বাধ্যবাধকতা তেমন নেই। এবং আশা করা হচ্ছে, এই ভ্যাকসিনগুলোর মধ্যে অক্সফোর্ডেরটিই সবচেয়ে কম দামে পাওয়া যাবে।

editor

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *