A Reliable Media

রায়হান হত্যা: আরও দুই পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত

রায়হান হত্যা: আরও দুই পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত

অনলাইন ডেস্ক: সিলেট পুলিশ হেফাজতে নির্যাতনে রায়হান উদ্দিনের মৃত্যুর ঘটনার আরও দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই দুই কর্মকর্তা হলেন প্রথম তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালী থানার এসআই আব্দুল বাতেন ও কোতোয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সৌমেন মৈত্র।

আজ বুধবার (২৫ নভেম্বর) তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১০ অক্টোবর রাতে চট্টগ্রাম নগরীর নেহারীপাড়ার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে রায়হান আহমদকে ধরে নেওয়া হয় বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে।

১১ অক্টোবরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ভর্তি করা হয় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে মারা যান রায়হান। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ছিনতাইকালে গণপিটুনিতে আহত হন রায়হান, পরে হাসপাতালে তিনি মারা যান। কিন্তু পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশের দাবিকে প্রত্যাখ্যান করা হয়।

বলা হয়, ফাঁড়িতে নির্যাতনে মারা গেছেন রায়হান। রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নী বাদী হয়ে ১২ অক্টোবর নগরীর কোতোয়ালী থানায় হেফাজতে মৃত্যু নিবারণ আইনে মামলা করেন।

নির্যাতনের অভিযোগ ওঠার প্রেক্ষিতে মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি। এ কমিটি অনুসন্ধানে ফাঁড়িতে নির্যাতনের সত্যতা পায়।

১২ অক্টোবর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভুঁইয়াসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করা হয়।

১৩ অক্টোবর থেকে লাপাত্তা হয়ে যান আকবর। তাকে গ্রেফতারে আন্দোলন দানা বাঁধে সিলেটে। ৯ নভেম্বর সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার লক্ষীপ্রসাদ ইউনিয়নের ডোনা সীমান্ত এলাকা থেকে আকবরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

editor

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *